খুব ইচ্ছে করছে
তোর পাশে যেয়ে একটু দাঁড়াই,
সকালের আবছা রোদ ছুঁয়ে যাক আঙুল।
সাদা বকের ডানায় মুড়িয়ে
দূরে সরে যাক মৃদু কুয়াশাগুলো।
পাতা হারা কোনো শিমুলের ডালে
আটকে থাকা এক সূতো কাটা ঘুড়ি
বাতাসের সাথে অফুরানো কথার শব্দে ভেসে যাক।
আকাশ পর্যন্ত ছড়িয়ে থাকা তোর নীরবতাগুলো
আমার চোখের শূন্যতায় আশ্রয় গ্রহণ করুক,
আমি মন পেতে শুনতে থাকি
যেগুলো তুই বলিসনি কখনো।
তোর বুক থেকে এক মুঠো ধুলো কুড়িয়ে নিয়ে
বাতাসে উড়িয়ে দিয়ে বলি ‘ভালোবাসি’।
তবুও তোকেই ভালোবাসি।
খুব বেশি কিছু নয়,
আমি শুধু তোর ধুলোবালি হতে চাই।
আমি নাহয় তোর ধুলোবালিই হয়ে থাকবো।
দিবি তো?

অনাব্য টাঙন 1

কবি পরিচিতিঃ বাংলাদেশের শেষ প্রান্তের বিখ্যাত এক জেলা ঠাকুরগাঁয়ে তার জন্ম। শৈশব থেকেই কবি নন, তবে জীবন তাকে উপহার দিয়েছে অনেক কবিতা। জীবনের প্রয়োজনে প্রিয় স্বদেশ আর শৈশবের টাঙ্গন থেকে দূরে আছেন এই কবি।
নিপা খান এ প্রজন্মের কবি। শব্দের বেড়াজালে বেঁধে নিয়েছেন প্রতিবাদ আর প্রতিশ্রুতির হাতিয়ার গুলোকে। “বুনো মেঘ” “অর্ধেক দেবদারু” তার উল্লেখযোগ্য কাব্যগ্রন্থ।

মতামত দিনঃ